শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১ | ৯ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পরীমনির বিরুদ্ধে অল কমিউনিটি ক্লাবের অভিযোগ নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ জুন ২০২১ ০০:৩১ | আপডেট : ১৮ জুন ২০২১ ১৫:০৭
পরীমণি
পরীমণি

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমনির বিরুদ্ধে গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাব কর্তৃপক্ষের কোনো অভিযোগ নেই। তারা পরীমনির বিরুদ্ধে থানায় কোনো জিডিও করেননি বলে জানিয়েছেন ক্লাবের সভাপতি কে এম আলমগীর ইকবাল।

তবে এর আগে বুধবার অল কমিউনিটি ক্লাবের সভাপতি কে এম আলমগীর ইকবাল গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, গত ৭ জুন মধ্যরাতে পরীমনি ও তার সঙ্গীরা তার ক্লাবে গিয়ে হাঙ্গামা বাঁধিয়েছিলেন। তবে পরীমনির দাবি, মূল ঘটনা থেকে নজর সরাতেই এমন দাবি করা হয়েছে।  

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার কে এম আলমগীর বলেন, আমাদের ক্লাবের একজন সদস্যের সঙ্গে পরীমণি ৭ জুন ক্লাবে এসেছিলেন। আমাদের ক্লাবের নিয়ম অনুযায়ী, সদস্যদের সঙ্গে অতিথি আসতে পারেন। কিন্তু সেই অতিথি যদি কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটিয়ে থাকেন, তার জন্য আমরা ক্লাবের সদস্যকে জবাব দিতে বলতে পারি। অতিথিকে কিছু বলার অধিকার আমাদের নেই। আমরা পরীমণির বিরুদ্ধে কোথাও কোনো অভিযোগ করিনি।

তিনি বলেন, সেদিন একটা সামান্য ঘটনার প্রেক্ষাপটে পরীমণি ৯৯৯ নম্বরে কল করে ক্লাবে পুলিশ এনেছিলেন। পুলিশ এসে তেমন কিছু পায়নি, কিন্তু পুলিশ কোথাও গেলে তো সেগুলো লিখিত লিপিবদ্ধ করে রাখেন। পুলিশের যে কর্মকর্তা এসেছিলেন, তিনি ওয়াকিটকিতে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার সাথে কথা বলার পর এখানকার কিছু বিষয়ের নোট লিখে নিয়ে চলে যান। আমরা ক্লাব থেকে পুলিশের কাছে কোনো অভিযোগ করিনি।

পরীমনির বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেওয়ার মতো কোনো ঘটনা সেদিন ঘটেনি বলেও জানান ক্লাবটির সভাপতি। তিনি বলেন, খুবই সামান্য ঘটনা ছিল সেদিন। পরীমণিই বিষয়টি নিয়ে পুলিশ ডেকেছিলেন। আমরা এই বিষয়টি নিয়ে আর কথা বলতেও রাজি না। মিস পরীমনির বিরুদ্ধে আমাদের কোনো অভিযোগ নেই।

এদিকে গত ৭ জুন মধ্যরাতে গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে যাওয়ার কথা পরীমনি স্বীকার করেছেন। সিসি টিভির ফুটেজে পরীমনির সঙ্গে তার সাবেক বাগ্‌দত্তা তামিম হাসান ও কস্টিউম ডিজাইনার জুনায়েদ করিম জিমি ও আরেক নারীকে সে রাতে ক্লাবে ঢুকতে দেখা যায়। তবে সেখানে হাঙ্গামার বিষয়ে পরীমনির দাবি মূল ঘটনা থেকে নজর সরাতেই এই ঘটনা সামনে আনা হয়েছে।  

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ঢাকা বোট ক্লাবের ঘটনায় আলোচনায় আসেন ঢাকাই সিনেরমার অভিনেত্রী পরীমনি। তাকে চেতনানাশক ও মাদকদ্রব্য খাইয়ে ক্লাবে ধর্ষণচেষ্টা করা হয় অভিযোগ করে মামলা করেন পরী। এ ঘটনার পর আবাসন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ, অমিসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।



মন্তব্য করুন