শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২ | ১৬ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

লিটারে ৭ টাকা বাড়ল সয়াবিন তেলের দাম

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৯ অক্টোবর ২০২১ ১৬:৪৬ |আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১ ২৩:১৮
ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনার পর দেড় মাসের ব্যবধানে ভোজ্যতেলের দাম আরেক দফায় বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে মিল মালিকরা।

আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন এক ঘোষণায় জানায়, এখন থেকে খোলা সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৩৬ টাকা এবং বোতলজাত সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৬০ টাকায় বিক্রি হবে।

খোলা সয়াবিন তেল লিটার প্রতি ১২৯ টাকা এবং বোতলজাত তেল ১৫৩ টাকায় বিক্রি হচ্ছিল। দুটি ক্ষেত্রেই দাম ৭ টাকা বাড়ল। গত রোববার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভোজ্যতেলের নতুন এই মূল্য ঘোষণা করা হল। বাড়তি দল এখন থেকে কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।

এর আগে গত ৫ সেপ্টেম্বর ভোজ্যতেলের দাম বাড়াতে মন্ত্রণালয়ের দ্বারস্ত হয়েছিল মিল মালিকদের সমিতি। সেই সময় সয়াবিন তেলের দাম না বাড়ালেও পাম তেলের দাম প্রতি লিটার ১১২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৬০ টাকার ঘোষণা এসেছিল।

এ ছাড়া খোলা সয়াবিন তেল আগের নিয়মে প্রতি লিটার ১২৯ টাকা এবং প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ১৫৩ টাকা, ৫ লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ৭২৮ টাকায় বিক্রি অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছিল।

তবে সম্প্রতি আন্তর্জাতিক বাজারে আরেক দফায় বেড়ে যাওয়ার কথা বলে খোলা বাজার ও মুদি দোকানগুলোতে নির্ধারিত দামের চেয়ে বাড়িয়েই বিক্রি হচ্ছিল সয়াবিন তেল।

চলতি সপ্তাহের শুরু থেকে খুচরা পর্যায়ে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন দোকানে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বোতলজাত সয়াবিন প্রতিলিটার ১৫৬ থেকে ১৫৮ টাকা এবং খোলা সয়াবিন প্রতিলিটার ১৪২ থেকে ১৪৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছিল।

সমিতির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত সয়াবিন ও অপরিশোধিত পাম তেলের মূল্যে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা বিবেচনায় বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা ক্রমে বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন ভোজ্যতেলের নিম্নরূপ মূল্য নির্ধারণ করল।

এই মূল্য অবিলম্বে কার্যকর হলেও পরিবেশক ও খুচরা পর্যায়ে পুরনো মজুদের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য হবে না বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।



মন্তব্য করুন