শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২ | ১৬ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ডিজেল-কেরোসিনের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক
৩ নভেম্বর ২০২১ ২৩:৫৯ |আপডেট : ৪ নভেম্বর ২০২১ ১৮:২১
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

দেশের বাজারে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ১৫ টাকা বাড়িয়েছে সরকার। বুধবার (৩ নভেম্বর) বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত জানিয়ে বলা হয়, রাত ১২টার পর থেকেই বাড়তি দাম কার্যকর হবে।

এই সিদ্ধান্তের জন্য আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধিকে কারণ দেখানো হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে সরকার শুধু ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য প্রতি লিটার ভোক্তা পর্যায়ে ৬৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮০ টাকা পুনর্নির্ধারণ করেছে।’

বাংলাদেশে যে পরিমাণ জ্বালানি তেল ব্যবহার হয়, তার ৭৩ শতাংশের বেশি ডিজেল। সড়ক ও নৌ পরিবহন, কৃষির সেচ পাম্প এবং বেশ কয়েকটি বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ নানা ক্ষেত্রে ডিজেলের ব্যবহার রয়েছে।

বিপিসির হিসাবে, ২০১৯-২০২০ বছরে সংস্থাটি ৫৫ লাখ ৩ হাজার মেট্রিক টন জ্বালানি তেল বিক্রি করেছে। এরমধ্যে ডিজেলের পরিমাণ ৪০ লাখ ২৩ হাজার মেট্রিক টন।

ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বাস ভাড়া বাড়ানোর দাবি তুলেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েতুল্লাহ।

তিনি বলেন, ‘করোনা মহামারীর কারণে এমনিতেই পরিবহন খাত মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত। এরমধ্যে লকডাউন উঠতে না উঠতেই নতুন করে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির ধকল পরিবহন খাত বহন করতে পারবে না। সরকার আমাদের সাথে আলোচনা ছাড়াই জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। এখন সরকার ও বিআরটিএর উচিৎ অতি দ্রুত পরিবহন ভাড়া সমন্বয় করা।’

বাস ভাড়া বাড়ার পাশাপাশি ডিজেলের দাম বাড়ায় পরিবহন ভাড়া বেড়ে যবে বলে পণ্যের দাম বৃদ্ধির আশঙ্কাও রয়েছেন। যেসব বাড়িতে কিংবা দোকানে গ্যাস ব্যবহার হয় না, সেখানে কেরোসিনের চুলায় রান্না হলে জ্বালানি বাবদ খরচও বেড়ে যাবে।

পেট্রোল, অকটেনসহ অন্য কোনো জ্বালানি তেলের দাম এই দফায় বাড়ানো হয়নি।

গত কিছু দিন ধরেই জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর আলোচনা চলছিল।



মন্তব্য করুন