বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২ | ১৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

টুইটারে নিষিদ্ধ হলো অনুমতি ছাড়া ছবি শেয়ার

অনলাইন ডেস্ক
৩ ডিসেম্বর ২০২১ ২০:১২ |আপডেট : ৪ ডিসেম্বর ২০২১ ১১:৪১
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

কারও ব্যক্তিগত ছবি বা ভিডিও অনুমতি ছাড়া শেয়ার করলে মুছে ফেলবে টুইটার- এমন একটি নীতিমালা গ্রহণ করেছে সামাজিক যোগাযোগের এই প্লাটফর্মটি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টুইটার সম্প্রতি ডক্সিং নামে একটি নীতি প্রকাশ করেছে। এতে সম্মতি ছাড়া অন্যের ছবি বা ভিডিও শেয়ার করার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। যদিও সমালোচকরা বলছেন, এটি প্লাটফর্মের স্বাধীন মত প্রকাশ দমনে সহায়ক হিসেবে কাজ করতে পারে।

টুইটারের নতুন সিইও হিসেবে পরাগ আগরওয়াল দায়িত্ব নেওয়ার এক দিনের মাথায় নতুন নীতিমালা চালুর এই সিদ্ধান্ত নিলো সংস্থাটি। এতে ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা আরও সুরক্ষিত থাকবে বলে মনে করছে টুইটার।

এদিকে টুইটার এক ব্লগ পোস্টে উল্লেখ করেছে, গোপনীয়তা ও সুরক্ষার লক্ষ্যে আমরা একাধিক প্রাইভেসি সিস্টেমে পরিবর্তন আনতে যাচ্ছি। আমরা আমাদের বিদ্যমান ব্যক্তিগত তথ্যনীতি হালনাগাদ করছি এবং প্রাইভেট মিডিয়া অন্তর্ভুক্ত করার সুযোগ যোগ করছি। আমাদের বিদ্যমান নীতির আওতায়, অন্য কারও ব্যক্তিগত তথ্য, যেমন-ফোন নম্বর, ঠিকানা ও আইডি প্রকাশ করা এরই মধ্যে টুইটারে অনুমোদিত নয়। এর মধ্যে রয়েছে ব্যক্তিগত তথ্য প্রকাশ করার হুমকি দেওয়া বা অন্যদের তা করতে উদ্বুদ্ধ করা এবং এর সঙ্গে রয়েছে ভুয়া ও মিথ্যা তথ্য প্রচার।

ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা নীতি আরও শক্তিশালী করার লক্ষ্যেই নতুন এ আপডেট বলেও জানিয়েছে টুইটার।

টুইটার আরও জানিয়েছে, অন্যের ব্যক্তিগত ছবি বা ভিডিও আপলোডের আগে সে ব্যক্তির কাছ থেকে সম্মতিসূচক অনুমতি নিতে হবে। তবে, কোনো ব্যক্তি যদি সে মিডিয়া ফাইল আপলোডের পরে কোনো অভিযোগ করেন, তাহলে তা গুরুত্বসহকারে দেখা হবে এবং সেই অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ক্ষেত্রে অভিযোগকারীকে জানাতে হবে, তার অনুমতি ছাড়া অন্য একজন ব্যবহারকারী তার ছবি বা ভিডিও এ প্ল্যাটফর্মে আপলোড করেছেন। সংস্থাটি যখন সত্যতা যাচাই করে জানতে পারবে যে, ওই মিডিয়া ফাইল অভিযোগকারীর অনুমতি ছাড়া টুইটারে আপলোড করা হয়েছে, তখন সেটি মুছে দেবে টুইটার। এর সবটাই ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট।



মন্তব্য করুন