বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২ | ১৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নিউ ইয়র্কে প্রবাসী বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে ছোট ভাই খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, যুক্তরাষ্ট্র
১০ জানুয়ারি ২০২২ ১৪:৪৫ |আপডেট : ১১ জানুয়ারি ২০২২ ১৩:৪৯
ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করায় প্রবাসী বাংলাদেশি বড় ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছে মাদকাসক্ত ছোট ভাই।

গত শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) দুপুর সোয়া ২টায় নিউ ইয়র্ক সিটির এলমহার্স্টের ৭৪ ষ্ট্রিট ও ৪৫ এভেন্যুর অ্যাপার্টমেন্টে এ মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডটি ঘটে। ২৪ বছর বয়সী বড় ভাইয়ের উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে গলা ও ঘাড় থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ শুরু হয়। গুরুতর আহত শন সরকারকে (২১) স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, ছুরিকাঘাতে শন সরকারের প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। দুই ভাইয়ের তর্ক যখন হিংসাত্মক হয়ে ওঠে তখন তাদের মা সমাধানের চেষ্টা চালায়।

আবাসিক ব্লকের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ডাক্তাররা মারাত্মকভাবে আহত ভাইকে নিয়ে যাওয়ার সময় প্রতিবেশী অস্তা ভারতী দেখেছিলেন। ২২ বছর বয়সী ভারতী বলেন, তারা তাকে অচেতন অবস্থায় নিয়ে যাচ্ছিলেন। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। তারা তাকে সিপিআর দিচ্ছিল, কিন্তু যখন তারা তাকে অ্যাম্বুলেন্সে রাখল তখন সে নড়াচড়া বা কিছুই করছিল না।

জানা যায়, সিরাজগঞ্জ জেলা সদরের সন্তান আব্দুস সালাম সরকার ৪৫ বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছেন। কিন্তু গ্রিনকার্ড পাননি এখন পর্যন্ত। স্ত্রী এবং নিউ ইয়র্কে জন্মগ্রহণকারী ৩ পুত্র নিয়ে ৪৪-১৫,৭৪ স্ট্রিটে অবস্থিত অ্যাপার্টমেন্টে বাস করেন আব্দুস সালাম (৬৭)।

প্রতিবেশীরা জানান, সালামের মেঝ ছেলে শন সরকার হাই স্কুল পাশ করতে না পেরে মাদকাশক্ত হয়ে পড়ে। মাঝেমধ্যেই শন মাতাল হয়ে বাসায় ফিরে মাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি ছাড়াও মারধর করতো। গত ৭ জানুয়ারি শুক্রবার বেলা ২টা ২০ মিনিটে শন সরকারের বখে যাওয়া নিয়ে মায়ের সাথে ঝগড়া শুরু করেন জ্যেষ্ঠ পুত্র। তা দেখে শন সরকার এগিয়ে যান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রান্নাঘর থেকে ছুরি এনে শন সরকারের গলা ও ঘাড়ে ছুরিকাঘাত করেন বড়ভাই। মারাত্মকভাবে আহত হয় শন। খবর পেয়ে অ্যাম্বুলেন্সসহ পুলিশ এসে শনকে নিকটস্থ এলমহার্স্ট হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক বড় ভাইকে গ্রেপ্তার করেছে।



মন্তব্য করুন

সর্বশেষ খবর
এই বিভাগের আর খবর