বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২ | ১৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পকেট থেকে বের করতেই স্মার্টফোন বিস্ফোরণ

অনলাইন ডেস্ক
১১ জানুয়ারি ২০২২ ১৬:৪১ |আপডেট : ১১ জানুয়ারি ২০২২ ২৩:৩৪
ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

আবারও খবরের শিরোনাম স্মার্টফোন ওয়ানপ্লাস। তবে নতুন ফিচারের জন্য নয়। এবার শিরোনাম হয়েছে পকেট থেকে ফোন বের করার সময়ে বিপজ্জনক ভাবে বিস্ফোরণের কারণে। এর আগেও একাধিকবার ওয়ানপ্লাস ফোন বিস্ফোরিত হয়েছে। তবে এবারের দুর্ঘটনা আরও ভয়ঙ্কর।

ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ মডেলের ফোন নিয়ে ব্যবহারকারীদের অভিযোগের শেষ নেই। এরমধ্যেই তৃতীয়বারের মত বিস্ফোরিত হল ফোনটি। ভারতের দুশ্যয়ন্ত গোস্বামী নামের এক ব্যক্তি ছয় মাস আগেই একটি ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই কিনেছিলেন। দিন দু’য়েক আগে পকেট থেকে বের করার সময়ে ফোনটির বিস্ফোরণ হয় বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

ঘটনাটি নিয়ে টুইটার ও লিঙ্কডইনে সরব হয়েছেন দুশ্যয়ন্ত। যদিও তার দুটি সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকেই পোস্ট ডিলিট করে দিয়েছেন। পরবর্তীতে তিনি দাবি করেছেন যে, ওয়ানপ্লাস কর্তৃপক্ষ তাকে ফোন করেছিল। তারা নষ্ট হওয়া ফোনটি যত দ্রুত সম্ভব পাল্টে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে।

এদিকে এক টুইটার পোস্টে দুশ্যয়ন্ত লিখছেন, ‘আমাকে সাহায্য করার জন্য আমি প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানাই। গতকাল রাত আটটার সময় ওয়ানপ্লাস টিম আমাকে ফোন করে আশ্বাস দেয়, মঙ্গলবারের মধ্যেই একটি নতুন মডেল আমার কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে।’

এরআগে টুইটার পোস্টে দুশ্যয়ন্ত অভিযোগ করেছিলেন, ‘জনপ্রিয় একটি মোবাইল কোম্পানি ওয়ানপ্লাস-এর একটি ফোন কিনেছিলাম। এই ফোনের কোয়ালিটি দুর্দান্ত বলে দাবি করেছিল কোম্পানিটি। আমার ফোনের মাত্র ৬ মাস বয়স। গতকাল পকেট থেকে বের করতে গিয়েই ফোন থেকে বিস্ফোরণ ঘটে। ঘটনাটি যে শুধুই দুঃখজনক তা নয়, ভয়ঙ্করও। এই দুর্ঘটনার দায় কি ওয়ানপ্লাস নেবে?’

টুইটারের পোস্টের সঙ্গে কয়েকটি ছবিও শেয়ার করেছেন দুশ্যয়ন্ত। এতে দেখা যায় ফোনের পিছনের অংশ জ্বলে গেছে। সেই সঙ্গেই ফোনের ডিসপ্লে, ব্যাটারি এবং ক্যামেরা সব কিছুই নষ্ট হয়েছে।

তবে এই প্রথম যেকোনো ওয়ানপ্লাস ফোন বিস্ফোরিত হল এমনটা নয়। এর আগে একাধিক বার ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ফোনের বিস্ফোরণ হয়েছিল বলে অভিযোগ করেছিলেন গ্রাহকরা। ভারত তো বটেই বিশ্বের অন্যান্য প্রান্তের ওয়ানপ্লাস ব্যবহারকারীরাও একই অভিযোগ করেছিলেন।



মন্তব্য করুন