শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৯ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রের বাল্টিমোরের সড়ক থেকে সরানো হলো জিয়াউর রহমানের নামফলক

কৌশলী ইমা, যুক্তরাষ্ট্র
১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৯:৪১ | আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৯:৩৮
বাল্টিমোরের সড়ক থেকে জিয়াউর রহমানের নামফলক সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত দেন সিটি মেয়র ব্রান্ডন এম স্কট
বাল্টিমোরের সড়ক থেকে জিয়াউর রহমানের নামফলক সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত দেন সিটি মেয়র ব্রান্ডন এম স্কট

অবশেষে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যের বাল্টিমোর শহরে সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নামে সড়কের নামফলক সরিয়ে নিয়েছে সিটি মেয়র ব্রান্ডন এম স্কট।

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী পরিবারের পক্ষ থেকে জোরালো প্রতিবাদের ফলে গত বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) এক ভার্চুয়াল সভায় নগর কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নেন বলে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের একটি সূত্রে জানা গেছে। সিটি মেয়রের সাথে দীর্ঘ তদবির ও ভুল বুঝিয়ে স্থানীয় বিএনপির কর্মীরা চলতি বছরের ২০ জুন ম্যারিল্যান্ডের বাল্টিমোর শহরে সারাটোগা স্ট্রিটে মেয়রকে দিয়ে উক্ত নামফলকটি উত্তোলন করেন।

ম্যারিল্যান্ড বিএনপির কর্মী খাজা মোহাম্মদ কাজল ম্যারিল্যান্ডের সারাটোগা স্ট্রিটে জিয়াউর রহমানের নামে সড়কের নামকরণের জন্য ম্যারিল্যান্ডের বাল্টিমোর শহরের মেয়রের সাথে দীর্ঘ তদবির চালান। জিয়াউর রহমানের নামে সড়কের নামফলক উত্তোলনের পর থেকেই যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী পরিবারের নেতাকর্মীরা প্রতিবাদ করে আসছিল।

লিখিত অভিযোগ দায়েরের পর যুক্তিপূর্ণ প্রমাণপত্র ও দলিল দস্তাবেজ চেয়ে বসেন সিটি মেয়র ব্রান্ডন এম স্কট। দেশ থেকে এসব প্রমাণাদি আনার পর আবেদনের মাধ্যমে তা জমা দেন। একই সাথে প্রায় পাঁচ শতাধিক ব্যক্তি এতে স্বাক্ষরও করেন। নানা ধরনের বিচার বিশ্লেষণের পর আবেদনকারী আওয়ামী লীগ নেতা প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীকে এক ভার্চুয়াল মিটিংয়ের সময় প্রদান করা হয়।


বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) বিশেষজ্ঞ প্যানেলসহ নেতৃবৃন্দরা তাদের যুক্তিতর্ক তুলে ধরেন এবং প্রয়োজনে সর্বোচ্চ আদালতের রায়ের হার্ডকপি প্রদানের অঙ্গীকার করেন। ফলশ্রুতিতে এই নামকরণ অপসারণের তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন মেয়র ব্রান্ডন স্কট। বলা হয় সিটির ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্ট এর কর্মীরা ইতোমধ্যেই রওয়ানা হয়েছে ওই নামফলক সরিয়ে নিতে। অতি দ্রুততার সাথে তা কার্যকর হবে।

শুরু থেকেই এ প্রক্রিয়ার নেতৃত্বে ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী। তাকে সহযোগীতা করেন শামীম চৌধুরী, ড. প্রদীপ রঞ্জন কর, এ্যাডভোকেট শাহ বখতিয়ার, মন্জুর চৌধুরী, এম এ করিম জাহাঙ্গীর, সাদেকুল বদরুজ্জামান পান্না, শরীফ কামরুল আলম হীরা, জালাল উদ্দিন জলিল, শহিদুল ইসলাম, রুমানা আক্তার, ফারুক হোসাইন, কায়কোবাদ খান, খন্দকার জাহিদুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, আশরাফ উদ্দিন, সিরাজ সরকার, রমেশ চন্দ্র নাথ, কাজী মনির হোসেন, নজরুল ইসলাম, মোহাম্মদ টি মোল্লা, প্রমুখ।

মেরিল্যান্ড সিটির মেয়র কর্তৃপক্ষের সাথে আজকের ভার্টুয়াল মিটিং-এ বাংলাদেশ থেকে যুক্ত ছিলেন এ্যপিলেট ডিভিশনের সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, অধ্যাপক মোহাম্মদ এ আরাফাত, সিটি মেয়রের পক্ষে ক্যাটালিনা রড্রিগেজ ও ডেভিড লিয়াম প্রমুখ।

এ বিজয়ের নেপথ্যে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ড. সেলিম মাহমুদ, ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হাবিব, দেওয়ান আশরাফ, নিউ ইয়র্কের স্থায়ী মিশনের প্রেস মিনিস্টার নূর এলাহী মিনার কাছে কৃতজ্ঞ বলে উল্লেখ করেন।



মন্তব্য করুন

সর্বশেষ খবর
এই বিভাগের আরও খবর