শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১০ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জাবি ছাত্রকে মারধরের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ, ৪ আনসার প্রত্যাহার

রেদোয়ান হাসান, সাভার
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২০:০৩ | আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:৫৩
জবি ছাত্রকে মারধরের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করেছেন শিক্ষার্থীরা
জবি ছাত্রকে মারধরের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করেছেন শিক্ষার্থীরা

জাতীয় স্মৃতিসৌধের সামনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে মারধর করার অভিযোগ ওঠেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা ১৫ মিনিট ধরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন।

পরে অভিযুক্ত চার আনসার সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে গণপূর্ত বিভাগ। প্রত্যাহার হওয়া আনসার সদস্যরা হলেন মো. ওমর, মো. মোহর, মো. যুগল ও মো. রমজান।

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেইরি গেট এলাকায় সড়ক আটকে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। এর আগে তারা ওই আনসার সদস্যদের বিচারের দাবিতে সেখানে মানববন্ধন করেন।

সাভার হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ করিম খান  জানান, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের কারণে সড়কের দুই পাশে যানচলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও পুলিশ সদস্যরা তাদের বুঝিয়ে সরিয়ে দিলে ১৫ মিনিট পর সড়ক স্বাভাবিক হয়। শিক্ষার্থীদের আশুলিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করতে বলা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান  বলেন, ‘গতকাল আমাদের নূর হোসেন নামে এক ছাত্র তার দুই ভাগনেকে নিয়ে স্মৃতিসৌধে বেড়াতে যান। এ সময় ফটকের দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তাকর্মীরা তাকে ঢুকতে দেয়নি। ওই সময় অনেককেই অনৈতিক সুবিধা নিয়ে ভেতরে ঢুকতে দেয়া হয়, যা নজরে আসে আমাদের ওই শিক্ষার্থীর।

তখন প্রতিবাদ করে মোবাইলে ভিডিও ধারণের চেষ্টা করেন নূর। এ সময় চার আনসার সদস্য তাকে মারধর করে গুরুতর আহত করে। পরে তাকে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

তিনি আরও জানান, এ ঘটনার প্রতিবাদে সড়কে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। পুলিশ গিয়ে আনসার সদস্যদের বিচারের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা সরে যান।

গণপূর্ত বিভাগের জাতীয় স্মৃতিসৌধের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মিজানুর রহমান  জানান, সোমবার রাতেই ওই চার আনসার সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। আহত শিক্ষার্থীর চিকিসার খরচ দেওয়া হবে।




মন্তব্য করুন

সর্বশেষ খবর
এই বিভাগের আরও খবর