শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২ | ৪ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ-উইন্ডিজ প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বৃষ্টির বাধা

স্পোর্টস ডেস্ক
৩ জুলাই ২০২২ ১৫:০৫ |আপডেট : ৪ জুলাই ২০২২ ০২:৪২
ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ-উইন্ডিজ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ছড়ি ঘুরিয়েছে বৃষ্টি, ম্যাচ শেষেও ‘বিজয়ীর হাসি’ হেসেছে বৃষ্টিই। বৃষ্টিতে পরিত্যক্তই হলো সিরিজের প্রথম ম্যাচ!

বৃষ্টির পর খেলা মাঠে গড়ালে আবার দুই দফা বৃষ্টি হয়। এতে টি-টোয়েন্টি ম্যচ ১৪ ওভারে নেমে আসার পরেও খেলা শেষ করা সম্ভব হয়নিম বাধ্য হয়ে তৃতীয় দফা বৃষ্টির পর দুও অধিনায়কের সঙ্গে আলোচনড় পর খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন মাঠ আম্পায়াররা।

প্রবল বর্ষণ যাকে বলে, সেই মুষলধারায় বৃষ্টি অবশ্য ছিল না ডমিনিকায়। থেমে থেমে হওয়া বৃষ্টির স্থায়িত্বও খুব বেশি নয়। তবে ঘুরেফিরেই বাগড়া বসাচ্ছিল বেরসিক বৃষ্টি। তাতেই পণ্ড হয়ে গেল বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজের মধ্যকার তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ।

বৃষ্টির কারণেই নির্ধারিত সময়ে খেলা শুরু না হওয়ায় ম্যাচ নেমে আসে ১৬ ওভারে। পরে আরেক দফা বৃষ্টি হলে আরো ২ ওভার কমে যায় ম্যাচের দৈর্ঘ্য। এমন পরিস্থিতি ১৪ ওভারের ম্যাচে বাংলাদেশের ইনিংসের ১৩ ওভার পর আবার নামে বৃষ্টি। তখন ৮ উইকেট হারিয়ে টাইগারদের স্কোর বোর্ডে ১০৫ রান। এরপর খেলা শুরুর অবস্থা তৈরি হলেও হাতে বেশি সময় না থাকায় দুই দলের অধিনায়কের মতামতের ভিত্তিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত করা হয়।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ দল। এ ম্যাচ দিয়ে দীর্ঘ ৭ বছর পর আবার টি-টোয়েন্টি একাদশে ফিরেছেন এনামুল হক বিজয়। মুনিম শাহরিয়ারকে নিয়ে ইনিংস শুরু করতে নামেন তিনি।

দলের পক্ষ থেকে দুই ওপেনারকে ‘ফ্রি’ লাইসেন্স দেওয়া হলেও এর ফায়দা তুলতে পারেননি মুনিম। ইনিংসের তৃতীয় বলেই ফেরেন তিনি। আকিল হোসেনের বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ব্যক্তিগত ২ রানে কাটা পড়েন এই তরুণ।

এরপর তিনে আসেন সাকিব আল হাসান। শুরু থেকে আগ্রাসী ঢঙে হাত খুলে খেলতে থাকেন তিনি। কিন্তু তাকে বেশিক্ষণ সঙ্গে দিতে পারেননি বিজয়। ওবেদ ম্যাককয়ের করা চতুর্থ ওভারের তৃতীয় বলেই এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন এই ডানহাতি। যদিও রিভিউ নিয়েছিলেন, কিন্তু কোনো কাজে আসেনি। ২ চারে ১০ বলে ১৬ রান করে আউট হন বিজয়। চারে নামা লিটন দাস ১৪ বল খেলে করেন মোটে ৯ রান। শেফার্ডের স্লোয়ার বল মিড উইকেট দিয়ে উড়িয়ে মারতে চেয়েছিলেন, কিন্তু টাইমিং ঠিকঠাক হয়নি।

যদিও লিটনের আউটের আগে সাকিব ঝড়ে পাওয়ার প্লের ৫ ওভারে ৪৬ রান তোলে বাংলাদেশ। কিন্তু স্থায়ী হয়নি বাঁহাতি অলরাউন্ডারের ইনিংসও। হেইডেন ওয়ালশের বেরিয়ে যাওয়া গুগলি বোলারের মাথার উপর দিয়ে উড়িয়ে মারতে চেয়েছিলেন সাকিব। ব্যাটে-বলে ঠিকঠাক হয়নি। কানায় লেগে যায় উইকেটের পেছনে। ২টি করে ছয়-চারে ১৫ বলে ২৯ রান করে সাজঘরে সাকিব।

সাকিবের আউটের পর ইনিংসের অষ্টম ওভারে আফিফ হোসেন ক্রিজে এলে এক বল পরেই ডমিনিকায় আবারও বৃষ্টির বাগড়া। যার কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসে ১৪ ওভারে। বৃষ্টি শুরুর সময় থেকে ৩৪ মিনিট পর খেলা শুরু হলে প্রথম বলেউ আউট আফিফ। ওয়ালশের ফুলার বলে স্লগ সুইপ করতে চেয়েছিলেন আফিফ, টাইমিং ঠিকমতো হয়নি। লং অনে দৌড়ে গিয়ে ক্যাচ ধরেন ব্রেন্ডন কিং। আফিফ ফেরেন রানের খাতা খোলার আগেই।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও হতাশ করেছেন। ১৩ বল খেলে মাত্র ৮ রানেই ধরেছেন প্যাভিলিয়নের পথ। একই রাস্তা অনুসরণ করেছেন শেখ মেহেদী হাসান। সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন ৩ বলে ১ রানে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানোর পর নুরুল হাসান সোহান খেলেন ১৬ বলে ২৫ রানের ইনিংস। সোহান আউট হওয়ার এক বল পরেই আবার বৃষ্টি শুরু হয়। ওই বৃষ্টিতেই পণ্ড হয়ে যায় ম্যাচ।



মন্তব্য করুন