রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪ | ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মোবাইল ফোন নিয়ে টয়লেটে যান? জেনে নিন নিজের কী ক্ষতি করছেন

অনলাইন ডেস্ক
৯ মে ২০২৩ ০৮:১২ |আপডেট : ৯ মে ২০২৩ ১৪:৩৭
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

বর্তমানে মোবাইল ফোন ছাড়া দিন যাপনের কথা চিন্তাও করতে পারেন না অনেকে। অবশ্য বিভিন্ন প্রয়োজনে মোবাইল ফোন দরকার হয়ই। এমনকী টয়লেটে সময় কাটানোর জন্যও অনেকে মোবাইল ফোন সঙ্গে নিয়ে যান। আপাতদৃষ্টিতে খুব সাধারণ মনে হলেও এই অভ্যাস ডেকে আনতে পারে মারাত্মক সব সমস্যা। আপনারও যদি এই অভ্যাস থাকে তবে জেনে নিন অজান্তে নিজের কী ক্ষতি করছেন-

টয়লেটে মোবাইল ফোন সঙ্গে নিয়ে যাওয়া নিয়ে ২০১৬ সালে একটি বিশেষ জরিপ করা হয়। তাতে দেখা যায়, এই অভ্যাস রয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকার প্রায় ৭৫ শতাংশ বাসিন্দারই। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাওয়ার কথা। এটি রীতিমতো বিপজ্জনক এমনটাই মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

ব্যাকটেরিয়ার আবাস

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আমাদের টয়লেটের দরজার লক, ফ্লাশ, কমোড, পানি ট্যাপ ইত্যাদিতে জমে থাকে প্রচুর ব্যাকটেরিয়া। টয়লেট যেহেতু বেশিরভাগ সময় ভেজা ও স্যাঁতস্যাঁতে থাকে তাই এই পরিবেশে ব্যাকটেরিয়া আরও দ্রুত ছড়াতে পারে। এ ধরনের পরিবেশ ক্ষতিকর সেসব ব্যাকটেরিয়ার জন্য সহায়ক। এগুলো কোনোভাবে আমাদের শরীরে প্রবেশ করলে রোগ বিস্তারে সময় লাগে না।

ক্ষতিকর জীবাণু

টয়লেটে যাওয়ার সময় আপনার সারাদিনের সঙ্গী মোবাইল ফোনটি সঙ্গে নিয়ে যেতেই পারেন। কিন্তু আপনার এই সাধারণ অভ্যাসের কারণে শরীরে কীভাবে ক্ষতি হয় তা জানতেও পারবেন না। আপনি যখন ফোন বা ট্যাব সঙ্গে নিয়ে বাথরুমে যান তখন এর বাইরের কভারে ক্ষতিকর জীবাণু এসে জমা হয়। আমাদের টয়লেটের ভেতর সালমোনেল্লার মতো মারাত্মক ব্যাকটেরিয়াও থাকে। এই ব্যাকটেরিয়া শরীরে প্রবেশ করলে ক্ষতিটা বেশিই হয়।

পেটের অসুখ হতে পারে

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ধরনের ব্যাকটেরিয়া যদি কোনোভাবে ফোনের মাধ্যমে হাত হয়ে পেটে যায় তবে নানারকম পেটের অসুখ দেখা দেওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। এখানেই শেষ নয়, সালমোনেল্লার মতো ব্যাকটেরিয়া থেকে হতে পারে টাইফয়েডের মতো মারাত্মক অসুখও। তাই মোবাইল ফোন বা ট্যাব নিয়ে টয়লেটে যাওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।



মন্তব্য করুন