সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ছাত্রলীগের কমিটির টাকাই কাল হয়ে দাঁড়ালো পিতা-পুত্রের সম্পর্কে!

নাজমুস সাকিব
২৫ মে ২০২৩ ০২:৫৮ |আপডেট : ২৫ মে ২০২৩ ১৪:৫৬
ছাত্রলীগের কমিটির টাকাই কাল হয়ে দাঁড়ালো পিতা-পুত্রের সম্পর্কে!
ছাত্রলীগের কমিটির টাকাই কাল হয়ে দাঁড়ালো পিতা-পুত্রের সম্পর্কে!

ছেলেকে নয় এ যেন বর্তমান ছাত্র রাজনীতির অসুস্থ ব্যবস্থাকে ত্যাজ্য করেছে পিতা, গত ২৩ মে "ছাত্রলীগ করায় ছেলেকে ‘ত্যাজ্য ঘোষণা’ বাবার" এ শিরোনামে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় দ্রুত পৌঁছে গেছে নেটিজেনদের কাছে, এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পিতা-পুত্র !

পিতা-পুত্রের অনেক অংক পড়াশোনার টেবিলে সমাধান করা গেলেও বাবা রাসেল মোল্লা এবং পুত্র রুদ্রের অংক মিলছে না!

তবে এ অংকের সুত্র ক্লিয়ার করে দিয়েছেন পিতা- রাসেল মোল্লা কালের কন্ঠ পত্রিকার মাল্টিমিডিয়ার এক ভিডিওর মাধ্যমে জানান মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্য রাজনীতি না। যারা টাকা খরচ করতে পারবে তাঁদের জন্য রাজনীতি। আমিও একসময় রাজনীতি করতাম এখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছি। রাজনীতি করতে হলে অর্থের দরকার কিন্তু আমি কোথায় এ অর্থ পাব??  রুদ্র প্রতিনিয়ত টাকা চায় আমার কাছে, কোথায় এত টাকা পাবো আমি??  ছাত্রলীগ বা ছাত্রদল বলেন কমিটি গঠন মানেই বাণিজ্য। টাকা ছাড়া কোথাও কমিটি পাওয়া যায় না। মাঠের কর্মীরা কখনোই কমিটি পায় না!

যদিও গত ১৫ মেন২০২৩ ছেলে রুদ্রকে নিয়ে ফেইসবুকে পোস্ট করছে বাবা আলহামদুলিল্লাহ, আলিফ আল মাহমুদ রুদ্র ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার শুভকামনা রইল। যদিও সে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বলেছে দীর্ঘদিন তাদের সম্পর্কে ঘাটতি আছে। তবে পিতা-পুত্রের অংকের সমাধানে ধোয়াঁশা রয়েই গেল! 

নেটিজেনরা বিভিন্ন মন্তব্য করছে যার মধ্যেঃ সাইফুল ইসলাম রয়েল লিখেছেন, রাসেল ভাই, আমি যতটুকু জানি তোমাদের পিতা পুত্রের সম্পর্ক বন্ধুর মতোই। হঠাৎ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পারিবারিক বিষয় নিয়ে এমন বার্তা দেয়ার মানে কি? যেহেতু বিষয়টা একান্তই পারিবারিক সেহেতু ফেসবুকের কল্যানে জনসাধারণকে অবহিত করার মানেই হয়না। তাহলে ভেবেই নিতে পারি এটা উদ্দেশ্য প্রনোদিত বার্তা ছিল। আর গভীরে যেতে চাইনা। আর আজকাল সাদামাটা স্ক্রিপ্ট পাবলিক নেয়না।

জহির ফরাজি লিখেছেন এই হলো বাংলাদেশর শ্রেষ্ঠ বাবা সাব্বাশ পিতা তোমাকে।

আবার রফিকুল ইসলাম লিখেছেন বাবার গর্ব করার কথা ছিল যে তাঁর ছেলে ছাত্রলীগ করে।

আলমগীর মাহমুদ বলেন ওয়ার্ড সভাপতি থেকে উপজেলা সভাপতির পদ এবার নিশ্চিত।

পদ বাণিজ্য নিয়ে বিভিন্ন সময়ে জাতীয় দৈনিক পত্রিকা গুলোতে  প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন প্রতিবেদন।

গত ৬ জুলাই ২০২২ দেশ রুপান্তর পত্রিকায় প্রকাশিত ছাত্রলীগের পদ কোটি টাকা।

গত ১৯ জানুয়ারি ২০১৪ প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছাত্রলীগের পদ টাকায় মেলে।

গত ১ মার্চ ২০২২ বাংলা নিউজ ২৪ প্রকাশিত হয়েছে অর্থ নিয়ে ছাত্রলীগে পদ দেওয়ার অভিযোগে বিক্ষোভ।

গত ৫ ডিসেম্বর ২০২২ বিডি নিউজ ২৪ ডটকম এ প্রকাশিত হয়েছে পঞ্চগড়ে টাকার বিনিময়ে কমিটি দেওয়ার অভিযোগ উপজেলা ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। 

গত ১ মার্চ ২০২৩ ঢাকা টাইমস এ প্রকাশিত হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে পদ দিতে ফেনসিডিল কেনার টাকা চাইলেন ছাত্রলীগ নেতা, অডিও ভাইরাল।

রাসেল মোল্লা তাঁর ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, প্রিয় কলাপাড়াবাসী, আসসালামু আলাইকুম। আমার ছেলে আলিফ মাহমুদ রুদ্র। সে আমার সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত হওয়ার কারণে তাকে আমার পরিবারের থেকে ত্যাজ্যপুত্র ঘোষণা করলাম। আজ থেকে আমার পরিবারের কোনো সদস্যদের সঙ্গে তাঁর কোনো সম্পর্ক নাই। আমি নিজেও কোনো রাজনীতিক দলের সঙ্গে জড়িত নাই, ভবিষ্যতে কোনো দলের সঙ্গে জড়িত হব না।

রুদ্র কলাপাড়া ইসমাইল তালুকদার টেকনিক্যাল কলেজ থেকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শেষ করেছে, দায়িত্বও পালন করেছে ৬ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি হিসাবে ।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক (অব:) ড.আবদুল লতিফ মাসুম বলেন. ঠাকুর ঘরে কে?  আমি কলা খাই না- এ প্রবচনটি বহুল কথিত। শাসকদলের নেতা -নেত্রীদের আলাপ প্রলাপ প্রমাণ মিলেছে তাঁরা নিজের অজান্তেই গোপন খবর ফাঁস করে দিচ্ছে, তেমনি কিছু মানুষ আছে যারা নিজেদের বারোটা বাজানোর খবর নিজেরাই দিচ্ছেন। সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠন কিংবা বিরোধী দলীয় ছাত্র সংগঠনে কমিটি বাণিজ্য বেশ পুরানো কথা তবে সন্তান যদি অপরাধীও হয় বাবার সন্তান কে নিয়ে নেতিবাচক লেখা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করে তাহলে এরথেকে গর্হিত কাজ আর হতে পারে না।

 

লেখক : শিক্ষার্থী, আইন বিভাগ

ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ

 [email protected]



মন্তব্য করুন