সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বেরোবিতে দুই দিনব্যাপী আন্তঃবিভাগ বিতর্ক উৎসবের উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৪ নভেম্বর ২০২৩ ১৮:৩১ |আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০২৩ ০৫:২২
ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

‘বাল্যবিবাহ রুখবো, সম্ভাবনার আগামী গড়বো’ প্রতিপাদ্য এবং ‘যুক্তির মিছিলে ভাঙি মগজের কারফিউ’ স্লোগানকে সামনে রেখে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী প্রথম আন্তঃবিভাগ বিতর্ক উৎসব।

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের দক্ষিণ পাশে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে এ উৎসবের সূচনা হয়।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি আয়োজিত দুই দিনব্যাপী বিতর্ক উৎসবের প্রথম দিন শুক্রবার নক আউট পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। দ্বিতীয় দিন শনিবার (২৫ নভেম্বর) কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমি ফাইনাল, ফাইনাল, পুরষ্কার বিতরণী ও সমাপনী পর্বের মধ্য দিয়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতার সমাপ্তি ঘটবে। বিতর্ক প্রতিযোগীতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২২টি বিভাগের ১৬টি দল অংশগ্রহণ করছে।

বিতর্কে স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেছেন বেগম রোকেয়া ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটির চীফ মডারেটর ও একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক উমর ফারুক।

বিতর্ক প্রতিযোগীতায় বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাহিনুর রহমান, ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক জিনাত শারমিন, ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক মহুয়া সবনম, বাংলা বিভাগের শিক্ষক খায়রুল আলম, ম্যানেজমেন্ট এ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের শিক্ষক খাদিজা শারমিন ও কারমাইকেল কলেজের সাবেক অধ্যাপক শাহ আলম প্রমুখ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. তুহিন ওয়াদুদ ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি পোমেল বড়ুয়া।

শুরুতেই সংগঠনটির মডারেটর ও অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী নেওয়াজ মোস্তফার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডিবেটিং সোসাইটির মডারেটর ও সামাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এ. বি. এম. নুরুল্লাহ।

দুই দিনব্যাপী শুরু হওয়া এ বিতর্ক উৎসবে সহযোগী পার্টনার হিসেবে রয়েছে জননী, সেভ দ্য চিলড্রেন, আইসিডিডিআর.বি, আরডিআরিএস বাংলাদেশ ও কোরিয়া ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন এজেন্সি।

প্রসঙ্গত, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি বিভিন্ন প্রতিযোগীতার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মেধা ও মনন বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিভিন্ন ধরনের বিতর্ক আয়োজনের মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে যুক্তির চর্চা ছড়িয়ে দিতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।



মন্তব্য করুন