শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১ | ১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নিউক্যাসল কেনার পর এবার ইন্টার মিলানে চোখ সৌদি যুবরাজের

ক্রীড়া ডেস্ক
১৩ অক্টোবর ২০২১ ২১:০৬ |আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১ ১২:০০
সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান
সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান

বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম আকর্ষণ ক্লাব ফুটবল। কিছুদিন আগেও পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ক্লাবের তালিকায় প্রথম ছিলো ম্যানচেস্টার সিটির নাম। তবে হঠাৎই সবকিছু এলোমেলো। দৃশ্যপটে হাজির সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। কিনে নিলেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল নিউক্যাসল ইউনাইটেডের মালিকানা। ধারণা করা হচ্ছে নিউক্যাসলের মোট সম্পদ সিটির ১৪ গুণ।

তবে জল গড়িয়েছে আরও বহুদূর। ইংল্যান্ডে একটি ক্লাব কিনেই সৌদি যুবরাজ থামছেন না। এবার তার চোখ পড়েছে ইতালিয়ান ফুটবলেও। ইউরোপের সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ইন্টার মিলানেও নজর পড়েছে পিআইএফের।

নিউক্যাসল কিনে নেওয়া সৌদি মালিকানাধীন কনসোর্টিয়াম সৌদি পাবলিক ইনভেস্ট ফান্ডের (পিআইএফ) প্রধান যুবরাজ। ৩০ কোটি পাউন্ডে (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩ হাজার ৪৯৮ কোটি টাকা) নিউক্যাসলের মালিকানা কিনেছেন সালমান।

ইতালিয়ান গণমাধ্যমের খবর, ইন্টারকে কিনতে বৈঠকেও বসেছিলো দুই পক্ষ। ইতালির অন্যতম সেরা ক্লাবটির আনুমানিক দামও বলা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে নিউক্যাসলকে যদি ৩০ কোটি পাউন্ডে কেনা যায়, তাহলে ইন্টারের দাম হতে পারে ১০০ কোটি ইউরো। বাংলাদেশের মুদ্রায় যা প্রায় ৯ হাজার ৮৮৫ কোটি টাকা।

চ্যাম্পিয়নস লিগ চলাকালে গত সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি আলোচনায় বসেছিল দুই পক্ষ। ইন্টারের মালিক প্রতিষ্ঠান চীনের সানিং কমার্স গ্রুপও ক্লাব বিক্রি করতে আগ্রহী বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

এদিকে এ গুঞ্জনের সত্যতা অনেকটা নিশ্চিত হওয়া যায় মালিকা প্রতিষ্ঠান সানিং কমার্স গ্রুপের আর্থিক অবস্থা থেকে। করোনাভাইরাস মহামারিতে ভীষণ আর্থিক টানাটানির মধ্যে পড়ে ব্যবসায়ী গ্রুপটি। ক্লাবের ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ সভাপতি ঝ্যাং ক্যাংইয়াং ক্লাবটিকে নিয়ে বড় স্বপ্নই দেখেছিলেন। তবে তার সবচেয়ে বড় প্রতিবন্ধকতা হচ্ছে অর্থনৈতিক ভঙ্গুরতা। মালিকানার হাতবদল হলে তিনবার ইউরোপসেরা ক্লাব হওয়া ইন্টারের পালাবদলও হতেও পারে।



মন্তব্য করুন