মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শরীয়তপুরে শারদীয় দূর্গোৎসবের জন্য প্রস্তুত ১০০ মণ্ডপ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:৫৮ |আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৭:১৯
শরীয়তপুরে শারদীয় দূর্গোৎসবের জন্য প্রস্তুত ১০০ মণ্ডপ
শরীয়তপুরে শারদীয় দূর্গোৎসবের জন্য প্রস্তুত ১০০ মণ্ডপ

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে প্রতিমা তৈরির কাজ প্রায় শেষ করছেন শরীয়তপুরের মৃৎশিল্পীরা।

আসছে পহেলা অক্টোবর সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এবছর শরীয়তপুরের ৬টি উপজেলায় শারদীয় দূর্গোৎসবের ১০০টি মণ্ডপের মধ্যে ৯৮টি সার্বজনীন ও ২টি ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৩১টি, নড়িয়ায় ৩৩টি, জাজিরায় ৫টি, ভেদরগঞ্জে ১৭টি, গোসাইরহাটে ৮টি, ডামুড্যায় ৬টি মণ্ডপ রয়েছে। ব্যক্তিগত দুটির একটি নড়িয়া উপজেলার চাকধ গ্রামের দীপক চক্রবর্তী ও অপরটি সদর উপজেলার বিমল অধিকারীর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হবে।

শরীয়তপুরের সবচেয়ে বড় মণ্ডপ নড়িয়ার শ্রী শ্রী পাঁচক দাসপাড়া সার্বজনীন দূর্গামন্দিরের মণ্ডপ ঘুরে দেখা গেছে, মৃৎশিল্পী গগণ শর্মা কাঁদা মাটির প্রলেপ শেষে রঙ তুলির আঁচড়ে প্রতিমাকে গড়ে তুলেছেন নিপুন শিল্পতায়। তবে দাসপাড়া মণ্ডপের ভিন্ন চিত্রে নজর কাড়ছে সবার।

এ মণ্ডপের মৃৎশিল্পী গগণ শর্মা বলেন, ‘আমি কাজ শেখার পর ৫ বছর ধরে পাঁচক দাসপাড়া মণ্ডপের প্রতিমা তৈরির কাজ করতেছি। আমার কাজে খুশি হয়ে মন্দির কমিটি প্রতি বছরই আমাকে কাজ করার সুযোগ দেয়। আমি বংশগতভাবে পাল নই, তবে মাটির তৈরি এ শিল্পের প্রতি ভালোবাসা থেকেই আমি কাজ শিখেছি। আধুনিক প্রযুক্তির ছোঁয়ায় মৃৎশিল্প যখন মৃত শিল্প প্রায় তখন গগণ শর্মার মত শিল্পীদের মৃৎশিল্পে আগ্রহী হতে দেখে আনন্দিত এ শিল্পের সাথে জড়িতরা।’